বৃহস্পতিবার অক্টোবর ১, ২০২০ || ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ইসরায়েলে তিন সপ্তাহের কঠিন লকডাউন

খবর২৪ডেস্ক

ইসরায়েলে দুর্নীতির অভিযোগে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর পদত্যাগের দাবিতে একদিকে চলছে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ, অন্যদিকে ফের দেখা দিয়েছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। সব মিলিয়ে রীতিমতো সঙ্কটে আছেন দেশটির দক্ষিণপন্থি ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী।

নিয়মিত প্রতিবাদ-বিক্ষোভকে খুব একটা পাত্তা না দিলেও মহামারি করোনাভাইরাসকে পাত্তা দিতে হচ্ছে সরকারকে। আগামী শুক্রবার থেকে দেশটিতে দ্বিতীয় দফা লকডাউন আরোপ করা হবে বলে জানানো হয়েছে। এর আগে গত মার্চে দেশটি কড়া লকডাউনের মাধ্যমে করোনা ঠেকিয়ে প্রশংসিত হয়েছে। নতুন করে আবারো করোনার সংক্রমণ বাড়ায় দেশটি এই সিদ্ধান্ত নিল। খবর আল জাজিরার।

সোমবার এক বিবৃতিতে লকডাউন জারির সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে নেতানিয়াহু বলেন, মন্ত্রিসভা তিন সপ্তাহের কঠোর লকডাউনের পরিকল্পনায় সম্মত হয়েছে। সে সঙ্গে প্রয়োজনে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হতে পারে।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, লকডাউন চলাকালে নাগরিকদের তাদের বাসস্থানের ৫০০ মিটারের মধ্যে অবস্থান করতে হবে। তবে সীমিত পরিসরে কাজে যোগদানের জন্য দূরে ভ্রমণ করার অনুমতি দেয়া হতে পারে। এ সময় স্কুল ও শপিং মলগুলো বন্ধ থাকবে। তবে সুপার মার্কেট ও ওষুধের দোকান খোলা থাকবে। বাড়ির ভেতরেও ১০ জনের বেশি মানুষ একত্রিত হওয়া যাবে না। তবে প্রার্থনার জন্য বাড়ির বাইরে ২০ জন সমবেত হতে পারবে।

নেতানিয়াহুর পদত্যাগ দাবিতে দেশটিতে বিক্ষোভ প্রতিবাদের ১৩ তম সপ্তাহ চলছে। এতে খুব একটা পাত্তা দিচ্ছেন না তিনি। এখন দ্বিতীয় দফা লকডাউন তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ-বিক্ষোভের ওপর কী ধরনের প্রভাব ফেলে সেটা দেখার বিষয়।

গত মার্চ মাসে ইসরায়েলে প্রথম লকডাউন জারি করা হয়েছিল। সে সময় এটা দারুণ কাজ দেয় এবং সরকার করোনা মোকাবেলায় সফল বলে প্রশংসিত হয়। দেশটিতে এ পর্যন্ত ১ লাখ ৫৬ হাজার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে মারা গেছেন ১ হাজার ১১৯ জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *