বৃহস্পতিবার জানুয়ারি ২১, ২০২১ || ৭ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সাভারে ২ হাজার পরিবারের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

খবর২৪ডেস্ক
রাজধানী ঢাকার উপকণ্ঠ সাভারে বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে স্থানীয় প্রভাবশালীদের সহযোগিতায় অবৈধভাবে নেওয়া অন্তত দুই হাজার পরিবারে ব্যবহৃত অবৈধ আবাসিক গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে সাভার তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কম্পানি লিমিটেড। সাভার তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপক (জোবিঅ) প্রকৌশলী আবু সাদাৎ মোহাম্মদ সায়েমের নেতৃত্বে বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সাভারের হেমায়েতপুরের শ্যামপুর ও পূর্বহাটির বিভিন্ন গ্রামে অভিযান চালিয়ে এ অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।

সংযোগ বিচ্ছিন্ন কাজে এ সময় সাভার তিতাস গ্যাসের প্রায় ৬০ সদস্যের একটি শ্রমিকদল অংশ নেয়।

এলাকাবাসী জানায়, হেমায়েতপুরের শ্যামপুর ও পূর্বহাটির বিভিন্ন গ্রামে কোনো কোনো বাসা-বাড়ির মালিক স্থানীয় একটি প্রভাবশালী চক্রকে ৩০ থেকে ৫০ হাজার টাকা প্রদান করে অবৈধভাবে বাড়িতে গ্যাস সংযোগ নিয়েছে। এই অবৈধ গ্যাস সরবরাহ দেওয়ার কারণে বৈধ সংযোগ নেওয়া গ্রাহকরা প্রয়োজনীয় চাপের (প্রেসারের) গ্যাস পাচ্ছেন না। খবর পেয়ে মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সাভার তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ ওই সমস্ত এলাকার প্রায় দুই হাজার পরিবারের মধ্যে অবৈধভাবে নেওয়া গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে। তিতাস ওই এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে মূল পয়েন্টে মাটির নিচে থাকা গ্যাসের পাইপ তুলে নিয়ে সিলগালা করে দেয়। এ সময় অবৈধ গ্যাস সংযোগ প্রদানে ব্যবহৃত নিম্নমানের কয়েক শ পাইপ উদ্ধার করা হয়।

অভিযানের সময় মূল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে ব্যবহার করা রাইজারগুলোও খুলে নেওয়া হয়। এ সময় অবৈধ গ্যাস সংযোগ ব্যবহারকারীরা নীরবে দাঁড়িয়ে থাকলেও কোনো প্রতিবাদ করতে সাহস পায়নি। গ্যাস পাইপগুলো অত্যন্ত নিম্নমানের হওয়ায় যেকোনো সময় গ্যাসের পাইপ ফেটে বড়ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা ছিল বলে উল্লেখ করেন তিতাস কর্তৃপক্ষ। যারা এভাবে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিয়েছিল তাদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান স্থানীয়রা।

সাভার তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী আবু সাদাৎ মোহাম্মদ সায়েম বলেন, বৈধ গ্রাহকদের নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস সরবরাহ নিশ্চিতকরণ ও অবৈধ সংযোগের সংখ্যা কমাতে তাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। সাভার-আশুলিয়ার সব অবৈধ গ্যাস লাইন পর্যায়ক্রমে বিচ্ছিন্ন করা হবে। এ ছাড়া অবৈধ গ্যাস সংযোগ প্রদানকারীদের বিরুদ্ধে রাতে সাভার মডেল থানায় মামলাও দায়ের করা হবে। পাশাপাশি অবৈধ গ্যাস সংযোগ নিয়ে চুলা ব্যবহারকারী বাড়ির মালিকদের মাঝে মধ্যেই আর্থিক জরিমানাও করা হচ্ছে। যেকোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অভিযানের সময় ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন ছিল।

অবৈধ্য গ্যাস সংযোগ বিছিন্ন করার সময় উপস্থিত ছিলেন তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল আলম সমর, সাভার তিতাস গ্যাস অফিসের উপব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মাহমুদ হাসান, সহব্যবস্থাপক আব্দুল মান্নান, কামরুল হাসান সেলিম, সাকিব বীন আব্দুল হান্নানসহ আরো অনেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *