বুধবার সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ || ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কারাগারে মাছি ভর্তি ডাল খেয়েছেন সঞ্জয় দত্ত

খবর২৪ডেস্ক
বলিউডের খলনায়ক এবং ৯০ এর দশকের সুপারস্টার সঞ্জয় দত্তের জীবন কোনো সিনেমার গল্প থেকে কম নয়। জীবনের সেরা সময় তিনি যেমন দেখেছেন, সেরকমই জীবনের সব থেকে খারাপ দিকটারও অভিজ্ঞতা হয়েছে। ১৯৯৩ সালে মুম্বাই বিস্ফোরণ মামলায় বেআইনি অস্ত্র রাখার দায়ে দীর্ঘদিন কারাগারে ছিলেন তিনি।

টাইমস অব ইন্ডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সঞ্জয় জানান, পরিবারের থেকে দূরে কারাগারে থাকাটা তার কাছে সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছিল। কারাগারে থাকাকালীন তিনি কোনোদিন ছেলে-মেয়ের সঙ্গে দেখা করেননি।

তিনি জানিয়েছেন, কারাগারে মাছি‚ পোকামাকড়সহ ডাল পরিবেশন করা হতো কয়েদিদের। তিনি তাই খেতেন। তিনি বলেন, পুণের জেলে ভীষণ মাছির উপদ্রব। চারিদিকে মাছি ওড়ে‚ জামা কাপড়ে‚ চুলে এবং ডালের মধ্যেও মাছি থাকত। আমি মছি হাত দিয়ে ফেলে দিয়ে তাই খেতাম। আমার সঙ্গে যে কয়েদি থাকত সে ডাল ফেলে দিত। আমি ওকে বলতাম, ‘ইয়ার‚ তুমি কতদিন না খেয়ে থাকবে?’

তিনি আরো বলেন, সে একদিন আমাকে প্রশ্ন করল ‘তুমি ওই মাছি ভর্তি ডাল কী করে খাও?’ আমি বললাম ‘এখানে প্রোটিন পাওয়া যায় না। ডালের মধ্যে প্রোটিন আছে।’

সঞ্জয় আরো জানান, কারাগারে থাকাকালীন ছেলেমেয়ের সঙ্গে একদিনের জন্যেও দেখা করেননি। তিনি বলেন, একদিন আর পারছিলাম না। আমার স্ত্রী বলল ওদের নিয়ে আসছে। আমি বারণ করে দিলাম। আমি চাইনি আমার বাচ্চারা আমাকে ওই অবস্থায় দেখুক। আমি চাইনি ওরা আমাকে জেলের ছেঁড়া পোশাকে মনে রাখুক। আজকালকার বাচ্চারা খুব স্মার্ট। আমি মাসে দু’বার ফোনে ওদের সঙ্গে কথা বলতাম। ওদের বলেছিলাম আমি পাহাড়ে শুটিং করছি, সেখানে ঠিকমতো কানেকশন নেই তাই ওদের সঙ্গে রোজ কথা বলতে পারি না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *