মঙ্গলবার সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০ || ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কানে ইতিহাস গড়লেন বাঙালি নারী চিত্রগ্রাহক

খবর২৪ডেস্ক
বিশ্ব চলচ্চিত্র অঙ্গনের অন্যতম জাঁকজমকপূর্ণ আসর ‘কান চলচ্চিত্র উৎসব’। দক্ষিণ ফ্রান্সের সমুদ্র তীরবর্তী শহর কানে বসেছে এই উৎসবের ৭২তম আসর। এবারের আসরে ইতিহাস গড়েছেন বাঙালি নারী চিত্রগ্রাহক মধুরা পালিত।

কলকাতার চিত্রগ্রাহক মধুরা পালিত জিতেছেন অ্যাঞ্জেনিউক্স অ্যাওয়ার্ড। এতে প্রমিসিং সিনেমাটোগ্রাফার হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছেন তিনি। মধুরাই প্রথম ভারতীয় নারী যিনি এই পুরস্কার জিতলেন। সত্যজিৎ রায় ফিল্ম ইন্সটিটিউশন থেকে পড়াশোনা করেছেন তিনি। সিনেমা, স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমা, বিজ্ঞাপন চিত্রে চিত্রগ্রাহক হিসেবে তিনি কাজ করেছেন।

অ্যাঞ্জেনিউক্স অ্যাওয়ার্ড পুরস্কার দেয়া হয় বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের সেই সকল চিত্রগ্রাহকদের যারা সদ্য চিত্রগ্রহণে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন, যাদের বিগত দুই বা তিন বছর কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে। তাদের মধ্যে থেকেই সেরাজনকে বেছে নেয়া হয়। বিজয়ীকে বিশেষ প্রশিক্ষণ ও উৎসাহ দেয়া এই পুরস্কারের লক্ষ্য।

পেপার বয়, দ্য গার্ল অ্যাক্রস দ্য স্ট্রিম ও কোরিয়ান ভাষার মিট সোহে সিনেমায় কাজ করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন মধুরা। এ প্রসঙ্গে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘কান আমার কাছে রূপকথার মতো। স্বপ্ন দেখেছিলাম একদিন ঠিক এখানে পৌঁছাব কিন্তু সেটা যে এত দ্রুত সত্যি হয়ে যাবে, কল্পনা করিনি। আশ্চর্য লাগে, এখনো ঠিক বিশ্বাস করে উঠতে পারছি না। ঘোরের মধ্যে আছি।’

গত শুক্রবার পুরস্কার গ্রহণ করেছেন মধুরা। পুরস্কারের সঙ্গে ডিরেক্টর অব ফটোগ্রাফি ব্রুনো ডেলবনেলের সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পেয়েছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ফিল্ম স্কুলে পড়ার সময় তার অ্যামেলি সিনেমাটি দেখি। তখন থেকেই তার চিত্রগ্রহণ আমাকে উদ্বুদ্ধ করত। তার সঙ্গে দেখা হবে। যাদের কাজ দেখে ভালো করার অনুপ্রেরণা পেয়েছি তাদের সামনে পাওয়ার অভিজ্ঞতাটা রোমাঞ্চকর। অনেক কিছু শিখব বলে আশা করছি। ফ্যান গার্ল মুহূর্তও বলতে পারেন।’ এছাড়া পরবর্তী প্রজেক্টে অ্যাঞ্জেনিউক্স-এর প্রযুক্তি ব্যবহারের সুযোগ পাবেন মধুরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *