বৃহস্পতিবার এপ্রিল ১৯, ২০১৮ || ৬ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে হামলা : সিরিয়া

খবর২৪ডেস্ক
রাসায়নিক হামলার প্রতিক্রিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র ও মিত্ররা সিরিয়ায় হামলা শুরু করেছে। সে হামলার প্রতিক্রিয়ায় সিরিয়া সরকার বলছে, আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে সিরিয়ায় হামলা চালানো হয়েছে বলে দাবি করেছে দেশটির সরকার।

তবে সিরিয়ার বিরুদ্ধে আমেরিকান, ফরাসি ও ব্রিটিশ আগ্রাসন ব্যর্থ হবে বলে দাবি সিরিয়ার। রাজধানী দামেস্কের উত্তর-পূর্বে একটি গবেষণাগারে এবং অন্যান্য সামরিক স্থাপনায় বিমান হামলা চলছে। হোমস শহরের সামরিক ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র চালানো হলে তা নস্যাৎ করার দাবি করা হয়েছে সিরিয়ার পক্ষ থেকে।

গত সপ্তাহে দুমা শহরে সন্দেহজনক রাসায়নিক হামলা চালায় সিরিয়া। এতে বেশ কয়েকজন নিহত হয়। এর জবাবেই যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা শনিবার সকালে হামলা শুরু করে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্যের সশস্ত্র বাহিনী যৌথভাবে হামলা চালাচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা সদর দফতর পেন্টাগনে এক ব্রিফিংয়ে জেনারেল জোসেফ ডানফোর্ড বলেছেন, তিন লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালানো হচ্ছে।

এগুলো হলো-দামেস্কের বৈজ্ঞানিক গবেষণাগার, যেখানে রাসায়নিক ও জৈব অস্ত্র উৎপাদন করা হয় বলে জানা গেছে। হোমসে একটি রাসায়নিক অস্ত্রভাণ্ডার ও হোমসেই পাশেই আরেক অস্ত্রভাণ্ডার, যেখান থেকে নির্দেশ দেয়া হয়। সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন বলছে, সরকারি বাহিনী ১২টার বেশি ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করেছে।

সিরীয় সরকারের মূল মিত্র রাশিয়া এক বিবৃতিতে বলেছে, এ ধরনের পদক্ষেপ পরিণতি ছাড়া শেষ হবে না।

মার্কিন জেনারেল ডানফোর্ড বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এমন লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানছে যাতে রুশ সেনাদের হতাহতের সংখ্যা কম হয়।

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস বলেছেন, প্রথম দফার বিমান হামলা শেষ হয়েছে। এর মাধ্যমে কড়া বার্তা দেয়া হয়েছে সিরিয়াকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *