বৃহস্পতিবার এপ্রিল ১৯, ২০১৮ || ৬ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

রমজানে নিত্যপণ্যের দাম বাড়বে না

খবর২৪ডেস্ক
দেশে চাহিদার তুলনায় কয়েকগুণ বেশি পণ্যের মজুদ রয়েছে উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, আসন্ন পবিত্র রমজানে ভোক্তাদের আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই। নিত্যপণ্যের দাম বাড়বে না।

গতকাল রবিবার সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে রমজান উপলক্ষে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সরবরাহ ও মূল্য পরিস্থিতি নিয়ে ব্যবসায়ীদের সাথে এক বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

বৈঠকে নিত্যপণ্যের আমদানিকারক ও ব্যবসায়ীরাও রমজানে পণ্যের দাম বাড়বে না বলে মন্ত্রীকে আশ্বস্ত করেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, রমজান মাসকে সামনে রেখে দেশে উত্পাদনের পাশাপাশি চাল, ভোজ্যতেল, ডাল, চিনি, পিঁয়াজ, রসুন, আদাসহ সকল নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য আমদানি করা হয়েছে। রমজানে এ সব পণ্যের দাম বৃদ্ধির কোনো সম্ভাবনা নেই।

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে তোফায়েল আহমেদ বলেন, সরকার ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ‘বন্ধুসুলভ’ সম্পর্ক রেখে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করতে চায়। আপনারাও রোজাদার ভাইদের প্রতি সহানুভূতিশীল হোন, আমাদের ধর্মেও এ ধরনের নির্দেশনা রয়েছে। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ডলারের দাম বেড়ে যাওয়া, পরিবহন খরচ এবং বিশ্ব বাজারে পণ্যের দাম বাড়লে স্থানীয় বাজারেও তার প্রভাব পড়ে। কিন্তু এবারের রমজানে এ ধরনের কোনো সঙ্কট হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

বৈঠকে ব্যবসায়ীরা লাইটারেজ জাহাজ সঙ্কটের কথা তুলে ধরে পণ্য পরিবহনে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এসব জাহাজ ব্যবহার করতে দেওয়াসহ কয়েকটি দাবি তুল ধরেন। মন্ত্রী ব্যবসায়ীদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন।

বৈঠকে বাণিজ্য সচিব শুভাশীষ বসু, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব শাহাবুদ্দিন আহমদ, বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশনের চেয়ারম্যান জহিরউদ্দিন আহমেদ, টিসিবি-এর চেয়ারম্যান ব্রি.জে. সালেহ, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. মফিকুল ইসলাম লস্কর, আমদানি ও রপ্তানি অধিদফতরের প্রধান নিয়ন্ত্রক এ আর এম নজমুস ছাকিল, মেঘনা গ্রুপের চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল, সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পরে বাণিজ্যমন্ত্রী বাংলাদেশ স্টিল মিলস অ্যাসোসিয়েশন ও সিমেন্ট মিলস অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দের সাথে দেশে চলমান রড ও সিমেন্টর মূল্য বৃদ্ধি রোধে করণীয় নিয়ে আলোচনা করেন। তবে সভায় কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণে আগামী ৬ থেকে ১০ এপ্রিলের মধ্যে ব্যবসায়ীদের নিয়ে অর্থমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর সঙ্গে বসবেন বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *