সোমবার ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৮ || ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

খালিপেটে চিনি বা ফলের রস পানে কী হয়, গবেষণায় নতুন তথ্য

খবর২৪ডেস্ক
সকালের নাস্তায় খালি পেটে ফলের রস পান করাটা পরিপাকতন্ত্রের ওপর চাপ তৈরি করতে পারে, বলছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকরা।

৬ ফেব্রুয়ারি, মঙ্গলবার সেল মেটাবলিজম জার্নালে প্রকাশিত আমেরিকার প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটির এক গবেষণায় এই তথ্য জানা যায়। খবর ডেইলি মেইল।

গবেষকরা দেখতে পেয়েছেন, ফলের রসে উচ্চ মাত্রায় ফ্রুক্টোজ চিনি থাকে, তা দ্রুতই পাকস্থলী থেকে ক্ষুদ্রান্ত্রে চলে যায়। সারা রাত না খেয়ে থাকার পর সকালে বেশী মাত্রায় ফ্রুক্টোজ শোষণ করতে পারে না ক্ষুদ্রান্ত্র। ফলে এরপর তা সরাসরিই বৃহদান্ত্রে চলে যায়। বৃহদান্ত্রে থাকা ‘উপকারী ব্যাকটেরিয়া’ এই ফ্রুক্টোজ গ্রহণ করার উপযোগী নয়।

তবে এর ফলে নিশ্চিত স্বাস্থ্যের ক্ষতি হবে কিনাতা গবেষণায় জানা যায়নি । কিন্তু গবেষকরা ধারণা করছেন, ক্ষতি হবার শঙ্কা আছে। আর তাই তারা উপদেশ দিয়েছেন, ‘খাবার পর অল্প পরিমাণে মিষ্টি খান।’

অতীতে ধারণা করা হতো চিনি পরিপাক হয় যকৃতে। কিন্তু নতুন এই গবেষণায় দেখা যায়, ফলে থাকা চিনি ফ্রুক্টোজের ৯০ শতাংশই ক্ষুদ্রান্ত্রে পরিপাক হয়। আর ক্ষুদ্রান্ত্র এই কাজটা তখনই ভালোভাবে করতে পারে যখন ভরপেট খাবার পর আমরা মিষ্টি খাবার খাই বা ফলের রস পান করি।

গবেষণার লেখক, প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক জশুয়া রাবিনোউইটজ বলেন, ‘আমরা দেখি, ইঁদুরকে আগে খাবার দেওয়ার পর ফ্রুক্টোজ পান করালে ক্ষুদ্রান্ত্র ভালোভাবে সেই ফ্রুক্টোজ পরিপাক করতে পারে এবং তা পেটের ব্যাকটেরিয়াকে প্রভাবিত করে না।’

গবেষকরা সমপরিমাণ ফ্রুক্টোজ এবং গ্লুকোজের মিশ্রণ পান করান ইঁদুরকে। এরপর এই দুই ধরণের চিনি কীভাবে তাদের পেটে পরিপাক হয় তা পর্যবেক্ষণ করেন তারা।

সূত্র: Daily Mail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *