মঙ্গলবার আগস্ট ২২, ২০১৭ || ৭ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

সরকারের শীর্ষ ব্যক্তিদের নির্দেশেই হামলা : বিএনপি

খবর২৪ডেস্ক
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের শীর্ষ ব্যক্তিদের নির্দেশেই রাঙুনিয়ায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ওপর হামলা হয়েছে বলে দাবি করেছে বিএনপি।

সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, আওয়ামী সরকারের শীর্ষ ব্যক্তিদের নির্দেশেই বিএনপি মহাসচিবসহ নেতাদের ওপর এই ন্যাক্কারজনক হামলা চালানো হয়েছে। গুণ্ডামীর এই নবসংস্করণ জনসমর্থন ছাড়া দুঃশাসন টিকিয়ে রাখারই ইঙ্গিতবহ।’

এই ঘটনায় আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর পুণরুজ্জীবিত ও বহুব্যাপী সন্ত্রাসের আরেকটি বিপজ্জনক মাত্রা দৃশ্যমান হলো বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয়।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘গণতন্ত্রের সর্বশেষ অস্তিত্বকে ছিন্নভিন্ন করে দেওয়ার জন্যই এটি একটি সহিংস আগ্রাসী পদক্ষেপ। এরা বিরোধীদলের মানবকল্যাণধর্মী সমাজসেবামূলক কর্মসূচিকেও বানচাল করতে হিংস্রের আক্রমণ চালায়।

‘গণবিচ্ছিন্ন হওয়ার কারণে এক অজানা ভয় থেকে আওয়ামী লীগের মনস্তাত্বিক আবহাওয়া বদলে গেছে। সেখানে পতনের আশঙ্কায় তারা উদ্ভ্রান্ত গুণ্ডামীতে নেমে পড়েছে। এখন সবকিছু হারিয়ে আওয়ামী লীগ শেষ ভরসা হিসেবে গুণ্ডা রাজত্ব কায়েম করতে সর্বশক্তি নিয়োগ করেছে।”

আওয়ামী লীগে রাজনৈতিক ভদ্রতার নিয়ম-কানুন নেই মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সন্ত্রাস আর গুণ্ডামীকেই নিজেদের জীবনে-আচরণে-কর্মক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছে। আওয়ামী-রাষ্ট্র সমালোচনা ও বিরোধীদলের গণতন্ত্রস্বীকৃত তৎপরতাকে স্তব্ধ করে দেওয়া বাধ্যতামূলক কর্মসূচি বলে মনে করে।’

ফখরুলের ওপর হামলার উদাহরণ দিয়ে রিজভী বলেন, ‘নির্বাচন আসার আগেই সন্ত্রাসকে যেভাবে প্রজনন করা হচ্ছে তাতে আগামী জাতীয় নির্বাচন শেখ হাসিনার অধীনে হলে অবাধ-সুষ্ঠু-শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানে কী শোচনীয় বিপর্যয় ঘটবে তা সহজেই অনুমেয়।’

‘সেই নির্বাচন হবে একতরফা, সন্ত্রাসকবলিত। ভোটের দিন ও এর পূর্বাপর অবস্থা চরম অরাজকতায় ঢেকে থাকবে। তাই আমরা দ্বিধাহীন কণ্ঠে বলতে চাই- শেখ হাসিনার অধীনে কোনো নির্বাচনই সুষ্ঠু হবে না।”

বিএনপির এই নেতা অভিযোগ করেন, মির্জা ফখরুলের ওপর হামলার প্রতিবাদে নয়াপল্টনে মিছিল বের করলে এতে পুলিশ হামলা চালিয়েছে। ৫/৬ জন নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায় পুলিশ। এর নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে গ্রেপ্তারকৃতদের মুক্তির দাবি জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *