শনিবার জুন ২৪, ২০১৭ || ১০ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

‘ভ্যাটের বোঝা বাড়ানো আত্মঘাতী হবে’

খবর২৪ডেস্ক
প্রস্তাবিত বাজেটের উপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকার ও বিরোধী দল উভয়েই বাজেটের যথাযথ বাস্তবায়নের উপর গুরুত্বারোপ করেছেন। এ সময় সরকারী দলের সদস্যরা বলেছেন, বাজেটের সমালোচনার নামে নির্বাচনবিরোধী ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত চলছে।

বিএনপি-জামায়াত চক্র এটা করছে। অন্যদিকে বিরোধী দলের সদস্যরা নতুন অর্থবছরে ভ্যাটের বোঝা বাড়ানো আত্মঘাতী হবে বলে দাবি করেছে। তারা ট্যাক্স ও ভ্যাট পূণনির্ধারণের দাবি জানিয়েছেন।
আজ রবিবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রথমে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং পরে ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট মো. ফজরে রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে এই আলোচনা হয়। আলোচনায় অংশ নেন সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী মুহাম্মদ ফারুক খান, স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহেদ মালেক স্বপন, বন ও পরিবেশ উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব, সরকারি দলের সদস্য কামাল আহমেদ মজুমদার, সৈয়দা সাহেরা মহসিন, আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী, সাবিনা আকতার তুহিন, আবদুল বাতেন, আলী আজম, হোসেন আরা লুত্ফা ডালিয়া, উম্মে রাজিয়া কাজল, জুয়েল আরেং, জাসদের লুত্ফা তাহের, স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন ও মো. ফরহাদ হোসেন, কামরুল আশরাফ খান এবং বিরোধী দল জাতীয় পার্টির রুহুল আমিন হাওলাদার, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা ও মোহাম্মদ নোমান।

আলোচনায় অংশ নিয়ে লে. কর্ণেল (অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান বলেন, বিএনপি যখন বলে পকেট কাটার বাজেট তখন সন্দেহ হয়। তাদের আমলে বাংলাদেশ দুর্নীতিতে তিনবার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। দুর্নীতি কত প্রকার ও কীভাবে করতে হয় তা দেখিয়ে দিয়েছে বিএনপি। বিএনপির উচিত ছিল বাজেটের ফোকাসগুলো নিয়ে কথা বলা। কিন্তু তারা বাজেট নিয়ে কোনও আলোচনা করেনি। কারণ তারা বাজেট বুঝে না। খালেদা জিয়া বিএনপি-জামায়াতের নেতৃত্বে অশুভ শক্তি অতীতেও বাংলাদেশের উন্নয়ন ব্যাহত করেছে, আগামীতেও করবে।

তিনি আরো বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে অশুভ পায়তারা লক্ষ্য করছি। সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে তাদের সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করতে হবে।

বিরোধী দল জাতীয় পার্টির মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার চট্টগ্রামে পাহাড় ধসসহ দুর্যোগ প্রসঙ্গ টেনে বলেন, পাহাড় এখন মৃত্যু উপত্যাকা। দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকার কী ব্যবস্থা নিয়েছে মানুষ জানতে চায়। একদিন ক্ষমতার বাইরে আসতে হবে। সেদিন কী জবাব দেবেন?

তিনি বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটটি নির্বাচনীমুখী হওয়া উচিত ছিল। সরকার যেভাবে ভ্যাটের বোঝা জনগণের ওপর চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে, তা অনাকাঙ্খিত। এ নিয়ে দেশের মানুষ হতাশ, নির্বাক। আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্রকারীরা সোচ্চার। এমন অবস্থায় ভ্যাটের বোঝা বাড়ানো সরকারের জন্য আত্মঘাতীই হবে।

রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, অর্থমন্ত্রীর ব্যাংকে সাধারণ মানুষের গচ্ছিত টাকার ওপরও নজর পড়েছে। আবগারি শুল্ক বৃদ্ধির ফলে জনমনে মারাত্মক অসন্তোষের সৃষ্টি করেছে।

কৃষি যন্ত্রপাতিদের ওপর ১৫ ভাগ ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, এর ফলে কৃষকরা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। পাহাড় এখন মৃত্যু উপত্যাকা। বেদনাবিধ এর দুর্ঘটনার কথা কিছুদিন পর ভুলে যাই, কিন্তু সরকার মানুষের জীবন রক্ষায় কী কী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে, তার জবাব জনগণ চায়। শুধু অর্জন বলে আত্মতুষ্টিতে না ভুগে ব্যর্থতাগুলো চিহ্নিত করে তা সমাধানের জন্য তিনি সরকারের প্রতি দাবি জানান।

তিনি বলেন, কেন চালের দাম সর্বনিম্ন ৫০ টাকা? কীভাবে এতো বাড়ল, কীভাবে কমাবেন তা জানি না। নির্বাচন সামনে, অথচ সরকার মনে হয় নির্বিকার। শত শত কোটি টাকা বিদেশে পাচার এবং ব্যাংকগুলো থেকে লুটপাট হয়ে গেলেও সরকার কারো বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হয়েছে। আবগারী শুল্ক বাস্তবায়ন হলে দেশ থেকে ২০০ কোটি টাকা পাচার হয়ে যাবে।

স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, পার্বত্য অঞ্চলে ভূমিধ্বসে আহত মানুষের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে সরকার ব্যাপক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় আহতদের ২৪ ঘণ্টা স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া বর্তমানে চিকনগুনিয়া আক্রান্তরোধে বেশ কিছু পদক্ষেপ বর্তমানে বাস্তবায়নাধীন রয়েছে।

উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব বলেন, দেশের দুই নেত্রীর বংশধর লন্ডনে বসবাস করে। একজন নেত্রীর পুত্র দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজ, লুটপাটকারী ও সন্ত্রাসী। চোরের মত লন্ডনে রাজনৈতিক আশ্রয় নিয়ে বাস করছে। অন্য নেত্রীর ভাগ্নি যুক্তরাজ্যের নির্বাচিত সংসদ সদস্য। প্রধানমন্ত্রীর পুত্র তথ্যপ্রযুক্তিবিদ সজীব ওয়াজেদ জয় ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলেছেন, আর তাঁর কন্যা মনোবিজ্ঞানী, যিনি অসহায় প্রতিবন্ধী শিশুদের নিয়ে অবিস্মরণীয় অবদান রেখে সারা বিশ্বের প্রশংসা ও স্বীকৃতি পাচ্ছেন।

জাতীয় পার্টির সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা বলেন, গত নির্বাচনে জাতীয় পার্টি অংশ না নিলে দেশে গণতন্ত্র ও বর্তমান সংসদ থাকতো কি না সন্দেহ। জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশ নিয়ে দেশকে অনিবার্য সঙ্কট ও সাংবিধানিক শূন্যতা থেকে রক্ষা করেছে। গাধা, খচ্চরের ওপরে ভ্যাট প্রত্যাহার করা হলেও উচ্চহারে ভ্যাট ও শুল্কারোপের ফলে দেশের গণমাধ্যমের অস্তিত্ব সঙ্কটের মুখে পড়বে। অনেক পত্রিকা এর ফলে বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

জাসদের লুত্ফা তাহের বলেন, বাজেটে যেভাবে ভ্যাটের আওতা বৃদ্ধি করা হয়েছে তাতে দেশের জনগণের মারাত্মক ক্ষতি হবে। তিনি ব্যাংক আমানত থেকে আবগারি শুল্প প্রত্যাহারের দাবি জানান।

এফবিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন বলেন, জ্বালাও-পোড়াও ও অগ্নিসন্ত্রাসের মাধ্যমে শত শত মানুষকে পুড়িয়ে হত্যার কারণে বিএনপি অনেক আগেই সম্পূর্ণ জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এখন জনগণকে বিভ্রান্ত করতে রূপকল্প দিচ্ছে। কিন্তু দেশের জনগণ তাদের আর কোনদিন গ্রহণ করবে না।

জাতীয় পার্টির মোহাম্মদ নোমান প্রস্তাবিত বাজেটকে ‘বেদনার বেলা ভূমিতে দাঁড়িয়ে বেদনার অট্রহাসি’ মন্তব্য করে বলেন, দুর্নীতি বন্ধ না হলে ভ্যাটের আওতা বাড়িয়ে কোনো লাভ হবে না। এই বাজেট মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্তদের ভোগান্তি বাড়াবে। যার কাছে (অর্থমন্ত্রী) চার হাজার কোটি কিছুই ছিল, তাঁর কাছে এক লাখ টাকা বড় হয়ে গেল? কথায় কথায় রাবিশ, তাঁর কথায় জনগণ হাসে, আমরাও হাসি। এটা বয়সের কারণে কি না জানি না। বাজেটে শুল্ক ও ভ্যাট পুনর্বিবেচনার দাবি জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *