শনিবার জুন ২৪, ২০১৭ || ১০ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

চলে গেলেন বিভক্ত জার্মানির পুনঃএকত্রীকরণের নায়ক হেলমুট কোল

খবর২৪ডেস্ক
জার্মান ইতিহাসের অবিস্মরণীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ও বিভক্ত দেশটির পুনঃএকত্রীকরণের নায়ক সাবেক চ্যান্সেলর হেলমুট কোল মারা গেছেন। শুক্রবার জার্মানির রাইনল্যান্ড প্রদেশের লুদভিগহাফেন শহরে নিজ বাসভবনে ৮৭ বছর বয়সে বার্ধক্যজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

১৯৯০ সালের ৩রা অক্টোবর হেলমুট কোল এর রাজনৈতিক জীবন তার শিখরে পৌঁছায়, সফল হয় তার সারা জীবনের স্বপ্ন। দুই জার্মানির পুনঃএকত্রীকরণ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাফল্যের পেছনে বিশাল অবদান ছিল তার। কিন্তু অন্যদিকে খ্রিষ্টীয় গণতন্ত্রী দলের চাঁদা কেলেঙ্কারির কারণে সক্রিয় রাজনীতি থেকে তার প্রস্থান সেই গৌরবের ওপর কিছুটা কালো ছায়া ফেলেছিল। তারপরও আজকের ইউরোপ তথা জার্মানির রাজনীতিতে যেসব মৌলিক বিষয় নিয়ে বিতর্ক দেখা যাচ্ছে, তার প্রেক্ষাপটে কোল এর মতো দূরদৃষ্টিসম্পন্ন ও বিশাল মাপের নেতার অভাব বোধ করছেন অনেকেই।

জার্মান ও ইউরোপীয় ঐক্যের প্রতি আস্থাশীল ছিলেন কোল। ফ্রান্স ও জার্মানির মধ্যে বিশেষ সম্পর্ক আরো জোরদার করা থেকে শুরু করে অভিন্ন মুদ্রা ‘ইউরো’ চালু করার প্রক্রিয়া, প্রতিটি ক্ষেত্রে তিনি শান্তি ও স্থিতিশীলতার স্বার্থে সাহসী পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। হেলমুট কোল এর জন্ম ১৯৩০ সালের ৩ এপ্রিল। জার্মানির লুদভিগহাফেনে একটি রোমান ক্যাথলিক পরিবারে তার জন্ম হয়। বাবা হান্স কোল আর মা সেসিলির তৃতীয় সন্তান ছিলেন তিনি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় তার বড়ভাই যুদ্ধক্ষেত্রে মৃত্যুবরণ করলেও কোলকে কোনো যুদ্ধে সরাসরি অংশগ্রহণ করতে হয়নি।

প্রথমে রুপরেশট এলিমেন্টারি স্কুল, তারপর ম্যাক্স-প্লাঙ্ক-জিমনেসিয়াম স্কুলে পড়াশোনা করেন তিনি। পরে হেসে রাজ্যের ফ্রাঙ্কফুর্ট শহরে আইন নিয়ে এবং হাইডেলব্যার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান নিয়ে পড়াশোনা করেন হেলমুট। ১৯৪৬ সালে নবগঠিত খ্রিস্টীয় গণতন্ত্রী ইউনিয়নে যোগ দেন তিনি। এক সময় তিনি এই দলের প্রধান হন। সভাপতিত্ব করেন দীর্ঘ ২৫ বছর। জার্মানির চ্যান্সেলর হিসেবে একটানা ১৬ বছর দায়িত্ব পালন করেছেন।

জার্মান ঐক্যের অনেক আগে থেকেই হেলমুট কোল ও ফরাসি নেতা ফ্রান্সিস মিতেঁরা পুরোধা হয়ে ইউরোপীয় জাতিগুলোর সমন্বয় এবং একটি সমন্বিত ইউরোপীয় অর্থনীতি গড়ার প্রয়াস পেয়েছিলেন। হেলমুট কোলের মৃত্যুতে জার্মান ও বিশ্ব রাজনীতিকেরা তাদের প্রতিক্রিয়াতে বলেছেন, জার্মান তথা ইউরোপীয় ঐক্যের এই অন্যতম নেতা বিশ্ব রাজনীতিতে চির অম্লান রইবেন। ডয়চে ভেলে ও বিবিসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *