শনিবার জুন ২৪, ২০১৭ || ১০ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

কাশ্মীরে ৬ পুলিশকে হত্যার পর লাশ বিকৃত করল জঙ্গিরা

খবর২৪ডেস্ক
ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে ভয়াবহ জঙ্গি হামলায় প্রাণ হারিয়েছে ছয় পুলিশ সদস্য। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা গেছে, হত্যার পর উন্মত্ত আক্রোশে লাশগুলোর মুখাবয়ব ক্ষত-বিক্ষত করে দিয়েছে জঙ্গিরা। শুক্রবার কাশ্মীরের অনন্তনাগের আরওয়ানি গ্রামে লোমহর্ষক এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, শুক্রবার সকালে আরওয়ানি গ্রামে অভিযান চালিয়ে লস্কর-ই-তৈয়বার তরুণ কম্যান্ডার জুনাইদ মাট্টুকে হত্যা করে যৌথবাহিনীর সদস্যরা। এর কয়েক ঘণ্টা পরেই সাম্প্রতিক কালের সবচেয়ে সংগঠিত ও বৃহত্তম হামলা চালায় জঙ্গিরা।

দেশটির সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, আরওয়ানি গ্রামে লুকিয়ে রয়েছে লস্কর কম্যান্ডার মাট্টু, এমন খবরে সেনা, পুলিশ ও সিআরপি গ্রামটিকে ঘিরে ফেললে শুরু হয় গুলির লড়াই। কোণঠাসা মাট্টু ও তার এক সঙ্গী মারা যায় বলে দাবি বাহিনীর। গুলির লড়াইয়ের মধ্যে পড়ে মারা যান দুই গ্রামবাসীও। কিন্তু এই অভিযানের পর থেকেই দক্ষিণ কাশ্মীরের পরিস্থিতি ঘোলাটে হয়ে উঠতে শুরু করে। জায়গায় জায়গায় শুরু হয় বিক্ষোভ, নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ করে দেদার পাথর ছোড়া।

এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই পাল্টা আঘাত হানে লস্কর। বিকেলে টহল দিতে আসা পুলিশের একটি গাড়িকে ঘিরে ধরে গুলি ছুড়তে থাকে জঙ্গিরা। অন্তত ১৫ জন জঙ্গি নিজেদের মধ্যে সমন্বয় রেখে এই হামলা চালিয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের ডিজি এস পি বৈদ্য। মাট্টুকে খতমের বদলা নিতে এই হামলা করা হয়ে থাকতে পারে বলে মন্তব্য করেন তিনি। পরে অবশ্য লস্করের মুখপাত্র আবদুল্লা গজনভি বিবৃতি দিয়ে হামলার দায় স্বীকার করে। জানায়, কম্যান্ডার মাট্টুর হত্যার বদলা নিতেই এই হামলা। কাশ্মীর পুলিশ কাশ্মীরিদের গায়ে হাত তোলা বন্ধ না করলে আরো এ ধরনের হামলা চালাবে তারা।

জানা গেছে, নিহত পুলিশ সদস্যরা সকলেই কাশ্মীরের বাসিন্দা। তাদের শুধু হত্যা করেই ক্ষান্ত থাকেনি জঙ্গিরা, ‘শিক্ষা দিতে’ বিকৃত করে দেওয়া হয়েছে ছয় পুলিশের মাথা। তাদের অস্ত্রশস্ত্রও লুঠ করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *