মঙ্গলবার আগস্ট ২২, ২০১৭ || ৭ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

সালমান খান এত ‘নিষ্ঠুর’ ছিলেন! ফাঁস করলেন ক্যাটরিনা

খবর২৪ডেস্ক
সাবেক প্রেমিক বলিউডের ‘ভাইজান’ খ্যাত সালমান খানের বিষয়ে আবারও মুখ খুললেন ক্যাটরিনা কাইফ। বর্তমানে দুজনই ব্যস্ত ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ ছবি নিয়ে।

শেষবার দুজনকে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল ‘এক থা টাইগার’ ছবিতে। মাঝখানে ৫ বছর কেটে গেছে। সম্প্রতি ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ এর এক সাংবাদিক সম্মেলনে সাবেক প্রেমিককে নিয়ে রীতিমতো স্মৃতিচারণ করলেন।
ক্যাটরিনা বললেন, “আমি একদিন কাঁদছিলাম। আর তাই দেখে সালমান হাসছিল। ” এটা শুনে সালমানকে যতটা ভিলেন বলে মনে হয়, তিনি ততটা ভিলেন নন। এর পেছনেও রয়েছে একটি গল্প। আর সেই গল্প উঠে এলো স্বয়ং ক্যাটরিনার কথাতেই।

ক্যাট জানান, “আমার ‘ছায়া’ নামের একটি ছবিতে অভিনয় করার কথা ছিল। ছবির পরিচালক ছিলেন অনুরাগ বসু আর নায়ক ছিলেন জন আব্রাহাম। আমাকে ছবিটিতে কাস্ট করা হয়েছিল। আমাকে একদিন রাতে একটি শট দেওয়ার জন্য ডাকা হয়। সেই শটটি সাইলেন্ট ছিল, তাও আবার এক ভূতের চরিত্র ছিল। দুই দিন শুটের পর, আমায় বলা হলো আমি ছবি থেকে বাদ। এরপর কাঁদতে শুরু করে দিই। ”

তখনই ক্যাটকে কাঁদতে দেখেই সালমান হেসে গড়িয়েছিলেন! এই প্রসঙ্গে ক্যাটরিনা বলেন, “আমি ছবি থেকে রিজেক্ট হয়ে কাঁদছি আর ভাবছি আমার ক্যারিয়ার শেষ, আর ও হাসছে! আমি ভাবছিলাম সালমান খুব সংকীর্ণ মনের। কিন্তু কিছুক্ষণ পরে ও এসে আমাকে শান্ত করে বলল যে, তুমি এখান থেকে অনেক দূর যাবে। আর এই ব্যাপারগুলো ইন্ডাস্ট্রিতে হয়েই থাকে। এগুলো নিয়ে ভেব না। শুধু নিজের লক্ষ্যে স্থির থাকো আর মন দিয়ে কাজ করে যাও। ”

এই ঘটনা থেকেই স্পষ্ট, সাবেক হলেও নিজের জীবনে সালমানের প্রভাব কোনোদিনই অস্বীকার করতে পারবেন না ক্যাটরিনা কাইফ। আর সালমান তো বহু নায়ক-নায়িকাকে উঠিয়ে এনে তারকাখ্যাতি দিয়েছেন। সেটা কি কেউ অস্বীকার করবে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *