মঙ্গলবার আগস্ট ২২, ২০১৭ || ৭ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

স্ট্রেস থেকে যেভাবে হয় হাইপারটেনশন

খবর২৪ডেস্ক
এটা সত্যি যে স্ট্রেসপূর্ণ পরিস্থিতির জন্য আপনার রক্তচাপ বেড়ে যেতে পারে অস্থায়ীভাবে। যদিও উচ্চ রক্তচাপ এবং স্ট্রেসের বিষয়টি খুব পরিষ্কার নয়। এর কারণ স্ট্রেস হাইপারটেনশন ও হার্ট ডিজিজের একটি রিস্ক ফ্যাক্টর। কিন্তু অন্য দিকে হাইপারটেনশনের অন্য রিস্ক ফ্যাক্টরের উপরও স্ট্রেস প্রভাব ফেলতে পারে এবং পরিস্থিতিকে আরো খারাপ করে তোলে। উদাহরণ হিসেবে বলা যায় যে, যদি আপনি স্ট্রেস অনুভব করেন তাহলে আপনার রক্তচাপ বৃদ্ধি পাবে, স্ট্রেস দূর করার জন্য আপনি বেশি খাবেন (যার কারণে আপনি মোটা হবেন), আপনি ব্যায়াম করার উৎসাহ পাবেন না এবং আপনি হয়তো আসক্ত হয়ে যাবেন ধূমপান বা মদ্যপানের প্রতি। এ সবগুলো কারণ আপনার হাইপারটেনশনের ঝুঁকি বৃদ্ধি করে বা সমস্যাকে আরো বাড়িয়ে তোলে।

আপনি যখন স্ট্রেসে থাকেন তখন কী হয়?
স্ট্রেস অনুভব করলে শরীরে স্ট্রেস হরমোন কর্টিসোল নিঃসৃত হয়, যা শুধু শরীরের হরমোনের ভারসাম্যহীনতাই সৃষ্টি করেনা বরং অস্থায়ীভাবে আপনার রক্তচাপ ও বৃদ্ধি করে। যদি এধরণের ঘটনা আপনার সাথে প্রায়ই ঘটে তাহলে আপনার হাইপারটেনশন হওয়ার ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়। সময়ের সাথে সাথে উচ্চ রক্তচাপ হৃদস্পন্দনের মাত্রাও বৃদ্ধি করতে পারে। এতে হার্ট দ্রুত স্পন্দিত হয় এবং হৃদরোগের ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়। শুধু এটাই নয়, এর ফলে রক্তনালীও সংকুচিত হয়ে যেতে পারে যদি আপনার কোলেস্টেরলের মাত্রা বেশি থাকে, যাকে হাইপারকোলেস্টেরলেমিয়া বলে।

কীভাবে এড়িয়ে যাবেন স্ট্রেসকে?
স্ট্রেস আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের একটি অংশ। স্ট্রেস মোকাবেলার সবচেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে স্বাস্থ্যগত জটিলতা প্রতিরোধ করা। স্ট্রেস নিয়ন্ত্রণের একটি সহজ উপায় হচ্ছে শখের কোন কাজে মনোনিবেশ করা, এটি শুধু প্রাত্যহিক সমস্যা থেকে আপনার মনকে অন্যদিকে ঘুরিয়ে দেবে না বরং আপনাকে শারীরিক ও মানসিকভাবেও রিল্যাক্স হতে সাহায্য করবে। স্ট্রেস নিয়ন্ত্রণের আরেকটি উপায় হচ্ছে যোগব্যায়াম বা মেডিটেশন করা। যদি আপনি ফিটনেস এর বিষয়ে খামখেয়ালি হন তাহলে ব্যায়াম করাটা আপনার স্ট্রেস বৃদ্ধি করতে পারে। স্ট্রেসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে আপনাকে শান্ত ও রিল্যাক্স হতে সাহায্য করতে পারে পড়া, লেখা, নাচা বা সাঁতার কাটা।

সূত্র : দ্যা হেলথ সাইট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *